রিকশাচালকদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি, পুলিশের বাধা

সংগ্রহীত

রিকশাচালকদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি, পুলিশের বাধা

ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ভ্যান নিষিদ্ধের ঘোষণা প্রত্যাহারের দাবিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ডাকে রোববার বাধার মুখে পড়েন রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা। পরে দুই শতাধিক রিকশাচালকের উপস্থিতিতে জিরো পয়েন্টে সমাবেশ করেন।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে রোববার সমাবেশ শেষ করে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে একটি মিছিল নিয়ে পল্টন মোড় ঘুরে জিরো পয়েন্ট মোড়ে আসলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। তবে সেখানে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, গত ২০ জুন জাতীয় সড়ক পরিবহন টাস্কফোর্সের সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সারা দেশে ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ভ্যান বন্ধ ঘোষণা করায় চরম বিপাকে পড়েছেন রিকশাচালকরা।

রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শাহাদাৎ খা বলেন, গ্যারেজ ও বাড়িতে অভিযান চালিয়ে দরিদ্র রিকশাওয়ালাদের রিকশা, ব্যাটারি, মোটর, যন্ত্রাংশ ইত্যাদি জব্দ করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ সকল ব্যাটারি, মোটর যন্ত্রাংশ আমদানি এবং বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কোনো নিষেধ ছিল না। গরিব রিকশাওয়ালারা সুদের ওপর কিস্তিতে কিংবা সঞ্চয় ভেঙে রুটি-রুজির জন্য ব্যাটারিচালিত রিকশা কিনেছেন। শ্রমিকরা বাণিজ্যিক দরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে আসছেন। কোনো ধরনের সংস্কারমূলক প্রস্তাব বিবেচনায় না নিয়ে বন্ধের ঘোষণা লাখ লাখ শ্রমিককে পথে বসিয়ে দিয়েছে।

সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে সারা দেশে কয়েক লাখ রিকশা শ্রমিকের রুটি-রুজি সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানান তিনি।

মতিঝিল ট্রাফিক বিভাগের সহকারী কমিশনার এস এম বজলুর রশিদ বলেন, রিকশা-ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা-কর্মীরা ১৫-২০ মিনিট জিরো পয়েন্টে অবস্থান নিয়েছিলেন। তখন গোলাপ শাহ মাজার হয়ে যান চলাচল করেছে। পরবর্তীতে তারা চলে গেছেন।