লবিস্ট নিয়োগের অভিযোগ বানোয়াট, দাবি বিএনপির

লবিস্ট নিয়োগের অভিযোগ বানোয়াট, দাবি বিএনপির

দেশবিরোধী প্রচারণায় বিএনপির লবিস্ট নিয়োগের অভিযোগকে ভিত্তিহীন ও বানোয়াট বলে দাবি করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আন্তর্জাতিক উচ্চপর্যায় থেকে আসা নিষেধাজ্ঞার পর ক্ষমতাসীনরা মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে নিজেদের অপকর্ম আড়াল করছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৮৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে তার সমাধিতে ফুল দেওয়ার পর এ সব কথা বলেন তিনি।

দেশের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালানোর জন্য মার্কিন প্রতিষ্ঠানের সাথে বিএনপির চুক্তি রয়েছে, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর এমন দাবির প্রেক্ষিতে খন্দকার মোশাররফ বলেন, মানবাধিকার লঙ্ঘন, ভোটাধিকার হরণ ও নিজেদের লুটপাট-লুণ্ঠন ধামাচাপা দিতেই ১৪ বছর ধরে লবিস্ট নিয়োগ করেছে আওয়ামী লীগ। জনগণকে বিভ্রান্ত করতেই এখন বানোয়াট বক্তব্য দিচ্ছে তারা।

এদিকে, দলটির আরেক নেতা মির্জা আব্বাস বলেছেন, বাকশাল প্রতিষ্ঠা করতেই একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে সরকার।

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ছাড়া বিএনপি কোন নির্বাচনে যাবেনা এবং নির্বাচন হতেও দেবে না, এমন মন্তব্য করে একদলীয় নির্বাচন প্রতিহত করার হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

উল্লেখ্য, দেশবিরোধী প্রচারণার জন্য বিএনপি দুইটি মার্কিন প্রতিষ্ঠানকে সাড়ে ৩১ কোটি টাকা দিয়েছে বলে মঙ্গলবার দাবি করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

তিনি বলেন, বিএনপি তাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ঠিকানা ব্যবহার করে ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩১ কোটি টাকা ব্যয় করে যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট নিয়োগ করেছিলো।