শান্তর বাজে ফিল্ডিংয়ের মাশুল, ১০০ ছাড়াল শ্রীলংকা

সংগ্রহীত

শান্তর বাজে ফিল্ডিংয়ের মাশুল, ১০০ ছাড়াল শ্রীলংকা

প্রথম সেশনটা মোটেই ভালো কাটেনি না বাংলাদেশের। ধীরগতিতে ব্যাট করে দলীয় অর্ধশতক পার করে মধ্যাহ্নভোজ বিরতিতে যায় শ্রীলংকা।

বিরতির পর অনেকটা দ্রুতগতিতে তিন অংকের ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছে গেল শ্রীলংকা। দলীয় রান ১০০ ছাড়াল। উইকেটের পাশে কোনো অংক না লিখেই।

অথচ গল্পটা অন্যরকম হতে পারত। এরজন্য নাজমুল হোসেন শান্তকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে পারেন অধিনায়ক মুমিনুল হক।

পাল্লেকেলেতে আজ দ্বিতীয় টেস্টে বল হাতে শুরু থেকেই দুর্দান্ত বল করছিলেন পেসার তাসকিন আহমেদ।

২০তম ওভারে তার শেষ বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়েছিলেন আগের টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে।

হাতে বল পেয়েও ক্যাচ ধরে রাখতে পারেননি শান্ত। স্লিপ ফিল্ডারদের জন্য কঠিন কোনো ক্যাচ ছিল না তা।  ক্রিকেটীয় ভাষায় দ্বিতীয় জীবন করুনারত্নে। এক বল পরই দলীয় ৫০ রান ছাড়ায় শ্রীলংকা।

কিন্তু তা ধরতে না পারার আক্ষেপ নিয়ে মধ্যাহভোজন বিরতিতে যেতে হয় বাংলাদেশ দলকে।

বিরতিতে যাওয়ার আগে ৩২ রান করে অপরাজিত ছিলেন দুই ওপেনার। বিরতির পর ফিরেই লাইফ পাওয়া করুণা রত্নে ফিফটি হাঁকালেন। ১১২ বলে নিজের ক্যারিয়ারের ২৬তম ফিফটি হাঁকালেন।

তারপরই ফিফটি ক্যারিয়ারের ১১তম ফিফটি হাঁকান অপর ব্যাটসম্যান লাহিরু থিরিমান্নে। ১০২ বলের মোকাবিলায় ৫০ হাঁকান এই ওপেনার।

এ দুজনের ব্যক্তিগত অর্ধশতক হাঁকানোর আগেই দলীয় শতক পূরণ করে শ্রীলংকা।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় ৩৭ ওভার শেষে শ্রীলংকার সংগ্রহ বিনা উইকেটে ১১৪ রান। ১১৭ বলে ৯ বাউন্ডারিতে ৬০ রানে অপরাজিত  অধিনায়ক করুণারত্নে। অপরপ্রান্তে ১০৬ বলে ৫২ রানে ব্যাট করছেন থিরিমান্নে।