শাবির হল খুলছে সোমবার,অনলাইনে ক্লাস

শাবির হল খুলছে সোমবার,অনলাইনে ক্লাস
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আবাসিক হল খুলছে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)। পর দিন মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) থেকে অনলাইনে ক্লাস শুরু হবে।
রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এক জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন।
তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের জরুরি সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সোমবার থেকে সব আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। পর দিন মঙ্গলবার সব বিভাগ অনলাইনে ক্লাস পরিচালনা করতে পারবে।
এছাড়া আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে সশরীরে ক্লাস শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।
এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি শাবিপ্রবির বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অসদাচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। পরে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত ১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় নিজ বাসভবনে জরুরি সিন্ডিকেট সভা ডেকে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন উপাচার্য (ভিসি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। সেই সভার ২৮ দিন পর আজ সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।
শাবিপ্রবির চলমান সংকট নিরসনে গত শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে সিলেটে যান শিক্ষামন্ত্রী। পরে বিকেলে সিলেট সার্কিট হাউসে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন মন্ত্রী। এ সময় শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ও ইউজিসির সচিব ফেরদৌস আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আটটি দাবি তুলে ধরেন শিক্ষার্থীরা।
পরে এক বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী ভিসিকে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে শাবিপ্রবির কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়ার এক দিন পর শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনে গত ১৬ জানুয়ারি থেকে ঘটে যাওয়া ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। তিনি বিভিন্ন ঘটনায় আহত শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতি সমবেদনা ও সহমর্মিতা জানালে গত শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) প্রেস ব্রিফিং করে শাবিপ্রবির আন্দোলন প্রত্যাহার করে শিক্ষার্থীরা। প্রেস ব্রিফিংকালে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফেরার আশাবাদের এক দিন পরেই সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রম ঘোষণা করা হয়।