শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, রণক্ষেত্র নিউমার্কেট

শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, রণক্ষেত্র নিউমার্কেট
রাজধানীর নিউমার্কেটে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল ১০টায় ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করলে আবারও মুখোমুখি অবস্থানে যায় শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ীরা। এ সময়ে ব্যবসায়ীদের উস্কানিতে আবারও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন তারা।
শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সকালে বিনা উস্কানিতে ব্যবসায়ীরা রাজধানীর বিভিন্ন জায়গা থেকে ভাড়াটে গুণ্ডা টোকাইদের একত্রিত করেছে নিউমার্কেট এলাকায়। পরে তারা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিতভাবে আমাদের ক্যাম্পাসে হামলা করে। তাদের দেশীয় অস্ত্র ইটপাটকেলের আঘাতে একাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তাদের কয়েকজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ব্যবসায়ী সমিতি কামরাঙ্গীরচর থেকে আনা টোকাইদের দিয়ে হামলা করাচ্ছে। শিক্ষকরা সমঝোতার জন্য গেলেও তাদের  উপর হামলা হয়েছে। সংঘর্ষে পুলিশের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ না করে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মিলে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করছে অভিযোগ ছাত্রদের।

সংঘর্ষে দায়ী ব্যক্তিদের আইনের মুখোমুখি হতে হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


দুপুরে আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা, গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ, সড়ক মহাসড়ক নিরাপদ ও যানজটমুক্ত রাখাসহ প্রাসঙ্গিক অন্যান্য বিষয় নিয়ে সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা জানান।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাম্প্রদায়িকতার কোনো সুযোগ নেই: শিক্ষামন্ত্রী
ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সংঘর্ষের বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী একটি গোষ্ঠী সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিচ্ছে। তবে এটি কোনো অবস্থায় সফল হবে না। তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাম্প্রদায়িকতার কোনো সুযোগ নেই। চাঁদপুর সার্কিট হাউসে উপস্থিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, নানা ইস্যু তৈরি করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এমন অস্থিতিশীল পরিবেশ করেও যখন সফল হচ্ছে না, তখন আবারো নতুন নতুন পথ তৈরি করছে তারা। এতে সজাগ রয়েছেন দেশের মানুষ এবং শিক্ষক সমাজও।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করে এ সরকার আমলে কেউ সফল হওয়ার স্বপ্ন দেখা দিবাস্বপ্ন ছাড়া আর কিছুই না। তবে ঢাকা কলেজে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের মারামারি নিয়ে এ মুহূর্তে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি শিক্ষামন্ত্রী।
সংঘর্ষের জেরে তীব্র যানজট, চরম ভোগান্তি
ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের কারণে শহরজুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন পথচারীরা। মিরপুর, ফার্মগেট, এলিফ্যান্ট রোডে যানবাহন চলাচলে স্থবিরতা দেখা গেছে। সকাল থেকেই রাজধানীজুড়ে এই অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে।
একাধিক পথচারী জানান, রাস্তায় গাড়ি চলাচল করতে না পারায় পায়ে হেঁটেই গন্তব্যে যেতে হচ্ছে বলে জানান তারা।
শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে আহত ৩৫ শিক্ষার্থী
নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় ৩৫ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। ঢাকা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ড. মো. আবদুল কুদ্দুস সিকদার সময় নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, গতকাল থেকে এ পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় কলেজের অন্তত ৩৫ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।
ঢাকা কলেজের শিক্ষক আহত
ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের চলমান সংষর্ষে আহত হয়েছেন ঢাকা কলেজ ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক নূরুন নাহার। দুপুর ১২টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনতে গিয়ে আহত হন তিনি। পরে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
জানা গেছে, গতকাল সোমবার থেকে চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে ঢাকা কলেজের শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল নিউ মার্কেটের দিকে রওয়ানা দেন। কিন্তু নিউমার্কেট এলাকায় প্রবেশ করার আগেই তাদের দেখে উত্তেজিত হয়ে উঠেন ব্যবসায়ীরা। তারা শিক্ষকদের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন, নিউমার্কেটের বিভিন্ন ভবন ও রাস্তা থেকে। এতে ঢাকা কলেজ ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক নূরুন নাহারসহ অনেক শিক্ষক আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা।
চন্দ্রিমা-নূরজাহান মার্কেটে বিক্ষুব্ধদের আগুন
ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের মধ্যে দুপুরে নূরজাহান মার্কেট ও চন্দ্রিমা সুপার মার্কেটে আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন ফায়ার সার্ভিস।
এদিকে নূরজাহান ও চন্দ্রিমা সুপার মার্কেটে আগুন দেওয়ার খবরে ব্যবসায়ীরা ফের বিক্ষুব্ধ হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করেছে। পুলিশও শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করছে। ঢাকা কলেজ, নূরজাহান মার্কেটের অংশ টিয়ার শেল ও কাঁদানে গ্যাসে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিয়েছে পুলিশ। টিয়ার শেল ও কাঁদানে গ্যাসে টিকতে না পেরে দৌড়ে সরে যেতে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের।
সময় টিভিসহ ৬ সাংবাদিককে মারপিট
নিউমার্কেট ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে চলমান সংঘর্ষের খবর সংগ্রহ করতে আসা সাংবাদিকদের পিটিয়েছেন মার্কেটের দোকানের কর্মচারীরা। তাদের অভিযোগ, ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষ নিয়ে সত্য তথ্য প্রকাশ করছেন না সাংবাদিকেরা। বিভিন্ন ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমের অন্তত তিনজন সাংবাদিক ও ক্যামেরাপারসনকে মারপিট করেছেন দোকানকর্মীরা। এদের মধ্যে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল সময় টিভি ও এসএ টিভির দুই সাংবাদিক রয়েছেন।
সময় টিভির সাংবাদিককে নিউমার্কেট থেকে নীলক্ষেত মোড়ে এনে মারধর করেন দোকানকর্মীরা। এসএ টিভির ওই ক্যামেরাপারসনের মাথা ফেটে গেছে। দোকানকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করায় তাকে ‘ভুয়া ভুয়া’ বলে তাড়িয়ে দেন দোকানকর্মীরা।