সাগরে ভয়ংকর ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার

সাগরে ভয়ংকর ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার
উত্তর কোরিয়া সাগরে আবারও ব্যালিস্টিক মিসাইল নিক্ষেপ করেছে। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর বরাতে আল জাজিরা জানায়, মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) এ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানো হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার ইউনহাপ বার্তা সংস্থা জানায়, সিউলের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ (জেসিএস) এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করে। জানা গেছে, পেনিনসুলার পূর্বে সিনপো থেকে এ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়।

বিষয়টি দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা বিশ্লেষণ করে দেখছে বলেও জানানো হয়। এছাড়া অন্য কোন তথ্য তারা প্রকাশ করেনি। এদিকে জাপানের কোস্টগার্ড বাহিনীর বরাত দিয়ে উত্তর কোরিয়ার মিসাইল নিক্ষেপের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের পর যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে দক্ষিণ কোরিয়ার বিশেষ দূতের সঙ্গে আলোচনার পর উত্তর কোরিয়ার বিষয়ে মার্কিন বিশেষ প্রতিনিধি সুং কিম বলেন, “আমরা উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনীতিক আলোচনার চেষ্টা করবো যাতে যুক্তরাষ্ট্র এবং আমাদের মিত্রদের নিরাপত্তা বৃদ্ধি পায়।”
চলতি অক্টোবরের শুরুতে বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। এর আগে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাও চালায় তারা। এর আগে সেপ্টেম্বরে পিয়ংইয়ং ট্রেন থেকে ব্যালিস্টিক ও ক্রুজ উভয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায়।
পরমাণু ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির কারণে ২০০৬ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় রয়েছে উত্তর কোরিয়া। তবে সব নিষেধাজ্ঞাকে উড়িয়ে দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানো অব্যাহত রেখেছে  উত্তর কোরিয়া।