সাম্প্রদায়িক সহিংসতা : ঘটনা তদন্তে বিএনপির দুই কমিটি গঠন

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা : ঘটনা তদন্তে বিএনপির দুই কমিটি গঠন

সারা দেশের গত কয়েক দিনের সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা তদন্ত করতে দুইটি কমিটি গঠন করেছে বিএনপি।রবিবার দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভায় এই কমিটি গঠিত হয়।

সোমবার  বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সভার সিদ্ধান্ত জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে মির্জা ফখরুল বলেন, ক্ষমতাসীনরা তাদের অবৈধ ক্ষমতা দীর্ঘ স্থায়ী করার লক্ষ্যে বিভাজনের রাজনীতি করছে। রাজনৈতিক দুরভিসন্ধির কারণেই এই রক্তপাত, লুটতরাজ চলছে। স্থায়ী কমিটির সভায় সনাতন ধর্মের অনুসারীদের ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিত করার আহ্বান জানায় এবং সকল ধর্মে মানুষের জীবন ও সম্পত্তির নিরাপত্তা নিশ্চিত কারণে সরকারের ব্যর্থতার তীব্র সমালোচনা করা হয়।

অবিলম্বে নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে দোষী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানানো হয়। পাশাপাশি কোনো তদন্ত ছাড়াই বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদেরকে বাড়ি-ঘরে পুলিশি তল্লাশি ও অভিযানের তীব্র নিন্দা জানানো হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতে এই ধরনের অপকর্ম করা হচ্ছে বলে মনে করা হয়। সভায় এই ধরনের হীন অপকৌশলের তীব্র নিন্দা জানানো হয়।

দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ন রাখার জন্য সকল নাগরিককে সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয় স্থায়ী কমিটির সভায়।

সভায় উপদ্রুত এলাকাগুলোতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে সহমর্মিতা প্রকাশের জন্য জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়।

 

একই সঙ্গে ঘটনাগুলোর তদন্ত করার জন্য সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলের নেতৃত্বে আরও একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি দু’টি অতি দ্রুত উপদ্রুত এলাকাগুলো সফর করে কেন্দ্রে প্রতিবেদন দাখিল করবে বলে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।