সিরিজ জিতে অধিনায়ককে উপহার দিতে পারবে তো টাইগাররা

সিরিজ জিতে অধিনায়ককে উপহার দিতে পারবে তো টাইগাররা

আজ (২০ মার্চ) বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের জন্মদিন। আজ নতুন ইতিহাস রচনা করতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জোহানেসবার্গে আজ দুপুর ২টায় মাঠে নামবে টিম টাইগার।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি জিতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। আজ স্বাগতিকদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশের চোখ থাকবে সিরিজ জয়ে। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জয়ের মধ্য দিয়ে অধিনায়ক তামিমকে জন্মদিনে দারুণ উপহার দিতে পারবে তো বাংলাদেশ?

অবশ্য মাঠে নামার আগে দারুণ আত্মবিশ্বাসী টিম টাইগার। সেঞ্চুরিয়নে প্রথম ম্যাচে জয়ের অন্যতম নায়ক মেহেদী মিরাজের কণ্ঠে ভাসছে আত্মবিশ্বাস। জোহানেসবার্গে মাঠে নামার আগে মিরাজ জানিয়েছেন, বাংলাদেশের লক্ষ্য এখন দেশের বাইরেও সিরিজ জয়।

মিরাজ বলেন, ‘স্বপ্ন যদি বড় না থাকে, তাহলে তো আগানো যায় না। আমাদের স্বপ্ন অনেক বড়। আমরা ভালো কিছু করতে চাই। দেশে যেমন সিরিজ জিতি বাইরেও আমরা সিরিজ জিততে চাই।’

সিরিজ জেতার লক্ষ্যে টিম গেমের দিকেই লক্ষ্য টাইগারদের। প্রথম ম্যাচেও দলের ব্যাটার ও বোলার সবার চেষ্টায় সহজ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। মিরাজ জানিয়েছেন, টিম গেম খেললে বাংলাদেশ সহজে জিতে যায়। এই ক্রিকেটারের ভাষ্যে, ‘আমরা টিম গেম খেললে তখনই বাংলাদেশ জিতে। আমাদের শেষ ম্যাচেও আমরা টিম গেম খেলেছি।’

এদিকে বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচেই যেমন সিরিজ জেতার লক্ষ্যে মাঠে নামবে, দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ বাঁচানোর জন্য খেলবে। জোহানেসবার্গে যেকোনোভাবে জয় তুলে নিজেদের অবস্থান শক্ত করতে মরিয়া স্বাগতিকরা।

প্রোটিয়া অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা জানিয়েছেন, জয় ছাড়া কোনো উপায় নেই তাদের। বাভুমা বলেন, ‘আমাদের ম্যাচ জেতা ছাড়া কোনো উপায় নেই। আমাদের সব বিভাগকে ভালো পারফরম্যান্স করতে হবে। আমাদের ওই খেলাটা খেলতে হবে যেটা আমরা জানি এবং আমরা পারি।’

জোহানেসবার্গে ভালো রেকর্ড আছে দক্ষিণ আফ্রিকার। এই মাঠে এখন পর্যন্ত খেলা ৩৭ ওয়ানডের ২৭টিতে জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা। মাঠটি ব্যাটিং স্বর্গ হিসেবে পরিচিত। এই মাঠেই ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার করা ৪৩৪ রানের জবাবে ৪৩৮ রান করে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

এছাড়াও এই ম্যাচে গোলাপি জার্সি গায়ে মাঠে নামবে স্বাগতিকরা। স্তন ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য এই জার্সি পরে মাঠে নামে প্রোটিয়ারা। এই জার্সি পরে মাঠে নামলে অপ্রতিরোধ্য ক্রিকেট খেলে প্রোটিয়ানরা। যদিও এই জার্সি পরে ৭ ম্যাচ জেতার পর শেষ দুটিতে হেরেছে স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশের অনুপ্রেরণা খুঁজতে অবশ্য দক্ষিণ আফ্রিকার পরাজয় না খুঁজলেও চলবে। ‘আন্ডারডগ’ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলতে নেমে যেভাবে আধিপত্য দেখিয়ে প্রথম ম্যাচ জিতেছে টিম টাইগার, নিশ্চিতভাবেই আত্নবিশ্বাসে স্বাগতিকদের চেয়ে ঢেড় এগিয়ে থাকবে টিম টাইগার। এদিকে এই ম্যাচে জিতে প্রথমবারের মতো ইতিহাস গড়ার হাতছানি তো থাকছেই বাংলাদেশের সামনে।

টাইগার অধিনায়ক তামিমও নিশ্চয়ই চাইবেন নিজের জন্মদিন স্মরণীয় করে রাখতে। পাশাপাশি সতীর্থরা প্রথম ম্যাচের মতো দারুণ জয় উপহার দিয়ে সিরিজ জেতার আনন্দ বাড়িয়ে দিলে ওয়ানডে অধিনায়ক তামিমের জন্য সেটি হবে সোনায় সোহাগা।