সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের তদন্তে নতুন মোড়

সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের তদন্তে নতুন মোড়

বলিউডের তারকা অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের অপমৃত্যুর ঘটনায় এখনো তদন্ত শেষ হয়নি। সম্প্রতি সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানিকে গ্রেফতার করা হয়। এর একদিন পরেই সুশান্ত সিংয়ের গৃহকর্মী নীরজ এবং কেশবকে তলব করেছে ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)।

এনসিবি জানায়, সিদ্ধার্থের মতো মাদক সংক্রান্ত মামলার জন্যই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাদেরকে। সুশান্তের মৃত্যুর পরে শোনা গিয়েছিল, অভিনেতাকে মাদক সরবরাহ করায় দুই ব্যক্তির হাত রয়েছে। তখনও তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।

গত ২৮ মে হায়দরাবাদ থেকে সিদ্ধার্থকে গ্রেফতার করেন এনসিবি-র কর্মকর্তারা। সেখানকার স্থানীয় আদালতের অনুমতি নিয়ে মুম্বাইয়ে নিয়ে আসা হয় তাকে। ১ জুন পর্যন্ত এনসিবির হেফাজতেই থাকবেন সিদ্ধার্থ।

গত বছর থেকেই এনসিবির নজরে ছিলেন সুশান্তের বন্ধু। একাধিক বার তাকে এনসিবি-র দফতরে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদও করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাগুলি। তার বয়ানে অসঙ্গতি লক্ষ্য করা গিয়েছিল বলে দাবি সংস্থার কর্মকর্তাদের।

সুশান্তের মৃত্যু পরে মাদক যোগে গ্রেফতার করা হয়ে‌ছে প্রয়াত অভিনেতার প্রাক্তন প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী এবং রিয়ার ভাই শৌভিককে। এই মামলায় এখনও পর্যন্ত মোট ৩৫ জনকে এনসিবির হেফাজতে থাকতে হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১৪ জুন মুম্বাইয়ের নিজ বাসা থেকে সুশান্তের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।