হুথিদের হামলার ভয়ে আমিরাত সফর বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

সংগ্রহীত

হুথিদের হামলার ভয়ে আমিরাত সফর বাতিল করলেন নেতানিয়াহু

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু হুথিদের হামলার ভয়ে আরব আমিরাতের সফর বাতিল করেছেন। ইয়েমেনে হুথি আন্দোলন সমর্থিত সেনাদের ক্ষেপনাত্রের ভয়েই তিনি আমিরাত সফর প্রত্যাহার করলেন। 

সৌদি আরবের আকাশসীমা ব্যবহার করে নেতানিয়াহুর সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যাওয়ার কথা ছিল। এটি হচ্ছে তার প্রথম আমিরাত সফর তবে এই নিয়ে তিনি চারবারের মতো সফর বাতিল করলেন।

ইসরাইলের চ্যানেল-১৩ টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে নেতানিয়াহু বলেছেন, গত সপ্তাহে তিনি আরব আমিরাতে তার সরকারি সফর বাতিল করেছেন কারণ সৌদি আরবের আকাশের কিছু সমস্যা ছিল। একথা দিয়ে তিনি মূলত ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সেনাবাহিনীর সাম্প্রতিক প্রতিশোধমূলক ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কথা উল্লেখ করেছেন। 

তবে এ ব্যাপারে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেন নি এবং তার বিমান লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হতো কিনা তাও পরিষ্কার করেন নি।

তেল আবিব এবং আম্মানের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হওয়ার প্রেক্ষাপটে গত সপ্তাহে জর্দান তার আকাশ সীমা নেতানিয়াহুর বিমানের জন্য বন্ধ করে দিয়েছিল। ফলে উপায়হীন হয়ে সৌদি আরবের আকাশ ব্যবহার করা ছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার কোনো বিকল্প পথ ছিল না নেতানিয়াহুর সামনে। এর অর্থ হচ্ছে ইয়েমেনি সামরিক বাহিনীর ক্ষেপণাস্ত্র নাগালে পড়তো নেতানিয়াহুর বিমান।

বৃহস্পতিবার নেতানিয়াহুর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, জর্দান নেতানিয়াহুর ফ্লাইটের অনুমতি দিতে দেরি করায় সংযুক্ত আরব সফর বাতিল করা হয়েছে এবং এটিই সফর বাতিলের একমাত্র কারণ।

যদিও বৃহস্পতিবার নেতানিয়াহুর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা দাবি করেছেন জর্ডান নেতানিয়াহুর ফ্লাইট দিতে দেরি করায় আমিরাত সফর বাতিল করেছেন।