১০ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে কবজি বিচ্ছিন্ন হওয়া কনস্টেবল শঙ্কামুক্ত

১০ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে কবজি বিচ্ছিন্ন হওয়া কনস্টেবল শঙ্কামুক্ত

আসামির দায়ের কোপে হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন হওয়া চট্টগ্রামের লোগাগড়ার সেই পুলিশ কনস্টেবল এখন শঙ্কামুক্ত। দীর্ঘ ১০ ঘণ্টা অপারেশন শেষে তিনি এখন শঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

গত রোববার (১৫ মে) রাজধানীর মোহাম্মদপুরের একটি হাসপাতালে বিকেল ৫টা থেকে টানা ১০ ঘণ্টা অস্ত্রোপচার শেষে কনস্টেবল জনি খানের হাতের কবজি জোড়া লাগানো হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালটির অপারেশন্স ক্লিনিক্যাল সার্ভিসেস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট শাখার পরিচালক ডা. মো. শহিদুল্লাহ।

ডা. মো. শহিদুল্লাহ বলেন, অপারেশনটি খুবই জটিল ছিল। একটা মানুষের সম্পূর্ণ দ্বিখণ্ডিত হয়ে যাওয়া হাতে অনেকগুলো অংশ থাকে, সেগুলোকে আলাদা করে সিরিয়ালি বের করতে হয়েছে। এরপর ৮ ঘণ্টা ৪০ মিনিট সময় পর্যন্ত অপারেশনটি করতে হয়েছে। এর আগে অপারেশন পূর্ববর্তী আরও এক ঘণ্টা সময় লেগেছে।

ডা. মো. শহিদুল্লাহ বলেন, রোগী এখন পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত। কিছুক্ষণ আগেই আমি দেখেছি যে, তার হাতের স্বাভাবিক রং চলে এসেছে। নার্ভ যেগুলো জোড়া দেওয়া হয়েছে, সেগুলোরও ফাংশন চলে আসতে শুরু করেছে। হাতে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হওয়ায় হাতেও উষ্ণতা চলে এসেছে।

পুরোপুরি সুস্থতার বিষয়ে তিনি বলেন, আমাদের হাসপাতালে এখন পর্যন্ত এমন যেসব রোগীদের চিকিৎসা দিয়েছি, তারা প্রত্যেকেই স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছেন। আশা করছি তিনিও শিগগিরই সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবেন।