২০২২ কাতার বিশ্বকাপে থাকবে উন্মুক্ত মদ

সংগ্রহীত

২০২২ কাতার বিশ্বকাপে থাকবে উন্মুক্ত মদ

২০০২ সালের জাপান-দক্ষিণ কোরিয়ার পর আবারও বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চলেছে এশিয়ার মুসলিম দেশ কাতার। ২০২০ ফুটবল বিশ্বকাপে ম্যাচ চলাকালে স্টেডিয়ামেই সমর্থকদের জন্য মদের (অ্যালকোহল) ব্যবস্থা থাকবে। যদিও বা কাতারে মদ ব্যবহারে রাষ্ট্রীয়ভাবে কঠোর বিধি-নিষেধ রয়েছে। 

ইউরোপিয়ান দেশগুলো থেকে প্রচুর সমর্থক বিশ্বকাপের সময় কাতারে উপস্থিত হবেন। তাই বিনোদনের ভরপুর উপাদান মজুত রাখার পরিকল্পনার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল ২০২২ বিশ্বকাপ আয়োজক কর্তৃপক্ষ ও কাতার সরকার। তবে এবার স্টেডিয়ামের ভেতরও মদ পানের অনুমতি দেয়ার প্রবল সম্ভাবনা সামনে এলো।

হসপিটালিটি প্যাকেজের টিকিটধারীদের এ সুবিধা সরাসরি থাকবে। সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) টুর্নামেন্টের প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ সময় বিশ্বকাপ হসপিটালিটি প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘ম্যাচ হসপিটালিটির’ চেয়ারম্যান জাইম বায়রম বলেছেন, ‘আমাদের আশা, মানুষ পানীয় লাভ করতে সক্ষম হবে। এটি আমাদের প্রত্যাশা। তবে এটি নির্ভর করছে বাকিদের সিদ্ধান্তের উপর।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেকোন বিধি-বিধান অবশ্য আমরা মেনে চলব। আইনে যে নির্দেশনাই থাকুক না কেন, এই সময়টাতে আমাদের পরিকল্পনা হচ্ছে অ্যালকোহল সরবরাহ করা।’

২০১০ সালে রক্ষণশীল ইসলামী দেশ কাতার যখন বিশ্বকাপের আয়োজক স্বত্ব সত্ত্ব লাভ করেছিল তখন থেকেই আয়োজকদের সামনে ঘুরে ফিরে আসছিল বিশ্বকাপের সময় অ্যালকোহলের বিষয়টি। অবশ্য সাধারণ মানের টিকেটধারীদের জন্য স্টেডিয়ামে অ্যালকোহল প্রাপ্যতার বিষয়ে কোন প্রজ্ঞাপন এখনো জারি হয়নি।