২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন লক্ষ্য ৬০ হাজার মেগাওয়াট

সরকারের সবশেষ মাস্টারপ্লান অনুযায়ি ২০৪১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য এখন ৬০ হাজার মেগাওয়াট। এ পরিকল্পনার বিদ্যুৎ উৎপাদনের মেগা হাব হতে চলেছে মহেশখালীর মাতারবাড়ী। তবে বিদ্যুৎখাত সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, দেশের ঠিক কতো বিদ্যুৎ প্রয়োজন তার সঠিক পরিকল্পনাও জরুরী এখন।

বিদ্যুৎ বিভাগের সবশেষ মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ি ২০২১ সালের মধ্যে ২৪,০০০ মেগাওয়াট, ২০৩০ সালের মধ্যে ৪০,০০০ মেগাওয়াট এবং ২০৪১ সালের মধ্যে ৬০,০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনার কথা বলা হয়েছে।

সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের প্রধান মেগা হাব হতে চলেছে মহেশখালীর সমুদ্র পাড়ের ইউনিয়ন, মাতারবাড়ী। যেখানে গড়ে উঠছে ১৪ কিলোমিটারের সমুদ্র চ্যানেল, এলএনজি টার্মিনাল, দুটি জেটিসহ সমুদ্র বন্দর।

 

এক সময় সরকারের বিদ্যুৎখাতের দায়িত্বে থাকা অধ্যাপক ড. ম তামিম মনে করছেন, ব্যবহারের দিকে লক্ষ্য রেখেই উৎপাদনের পরিকল্পনা করা উচিত।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইইইএফএ  বলছে বাংলাদেশে তৈরি অথচ বসে থাকা বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য বছরে ৯ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। তবে মন্ত্রী বলছেন, সরকার এখন ক্যাপাসিটি চার্জ নিয়ে ভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রকল্প এলাকার জন্য বর্তমানে মাতারবাড়ী ও ঢালঘাটা ইউনিয়নের এক হাজার ৪১৪ একর জমি গ্রহন করা হয়েছে যা ভবিষ্যতে আরো বাড়বে।