৭৩০০ টাকা খাবারের দাম দিতে হবে বিয়েবাড়ি গেলে ।

৭৩০০ টাকা খাবারের দাম দিতে হবে বিয়েবাড়ি গেলে ।

বিয়েবাড়ি এলে দিতে হবে ৭৩০০ টাকা! আমন্ত্রণপত্রে এমনই জানিয়ে দিলেন কনে। এই কথা শুনে অবাক নিমন্ত্রিতরা। সেশ্যাল মিডিয়ায় এই গল্প ভাগ করে নিয়েছেন সেই বিয়েতে আমন্ত্রিত এক ব্যক্তিই। তবে এই ঘটনা নতুন নয়।

আনন্দবাজার সূত্র খেতে জানা যায়, অন্তত ৭০ বছর আগে ম্যাগসেসেজয়ী লেখক-সাংবাদিক গৌরকিশোর ঘোষ তাঁর বিয়ের অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের পাঁচ টাকার টিকিট কেটে ঢোকার কথা নিমন্ত্রণপত্রে উল্লেখ করেছিলেন। গৌরবাবুর বাবাকেও টিকিট কেটে ঢুকতে হয়েছিল!

গৌরবাবু কেন এমন করেছিলেন, সে কথা জানার সুযোগ এখন হয়তো নেই। কিন্তু এই কনে কেন এমন ঘটনা ঘটালেন? বিয়ের অঢেল খরচ। বরের পোশাক, নিজের সাজ, গাড়ির খরচ, বিয়ের জায়গা— সবেতে অনেক অর্থ ব্যয় হয়। তার উপর আবার খাওয়াদাওয়া। এত খরচ বহন করতে অপারগ তিনি। সে কারণেই বিয়ের খাওয়া-দাওয়ার জন্য অতিথিদের কাছ থেকে মাথাপিছু ৯৯ ডলার করে চেয়েছেন। ভারতীয় টাকায় যার মূল্য দাঁড়ায় ৭৩০০।

ক্যাটরিনার বিয়েতে যে কারণে থাকছেন না সালমান

এরপরেই পোস্টটি ভাইরাল হয়ে যায়। নানা জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে বিয়েতে আমন্ত্রিতের বলা সেই গল্প। অনেকেই এই কনের কথা জেনে তাঁর বেছে নেওয়া পথের সমর্থনে কথা বলেছেন। সেই পোস্টের মন্তব্য বাক্সে লিখেছেন, তরুণী পরিজনেদের থেকে সাহায্য চেয়ে কোনও ভুল করেননি। কেউ কেউ অবশ্য এই পোস্টের নিন্দাও করেছেন। বলেছেন, এমন পোস্ট দেখে অপমানিত বোধ করছেন তাঁরা।